Birth Certificate

জন্ম নিবন্ধন বাতিল করার নিয়ম ২০২৪

জন্ম নিবন্ধন বাতিল করার নিয়ম! জানতে সম্পুর্ণ আর্টিকেলটি পড়ার অনুরোধ থাকবে। যদি আপনার একাধিক জন্ম নিবন্ধন থাকে তাহলে কিভাবে জন্ম নিবন্ধন বাতিল করতে হয় এই বিষয়ে আমরা আজকে আলোচনা করব। পূর্বে বলে নেওয়া ভালো, একাধিক জন্ম নিবন্ধন থাকা দন্ডনীয় অপরাধ। এবং এর জন্য আপনার জরিমানা বা শাস্তি হতে পারে।

যদি আপনার একাধিক জন্ম নিবন্ধন থাকে, তাহলে জন্ম নিবন্ধন বাতিল করার নিয়ম সম্পর্কে সঠিক তথ্যে জেনে, দ্রুত সময়ের মধ্যে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদের মধ্যে একটি রেখে বাকিগুলো বাতিল করুন। কেননা এর জন্য আপনাকে সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। আমাদের বাংলাদেশে একজন ব্যক্তির জন্য শুধুমাত্র একটি জন্ম নিবন্ধন সনদ এবং একটি মৃত্যু নিবন্ধন সনদ প্রদান করে বাংলাদেশ সরকার।

জন্ম নিবন্ধন বাতিল করার নিয়ম।

How to cancel birth certificate: অনেকেরই একাধিক জন্ম নিবন্ধন রয়েছে, বিভিন্ন কারণে হয়তো আপনি এই সনদ তৈরি করেছেন। যেমন; কেউ দেশে থাকা অবস্থায় জন্ম নিবন্ধন তৈরি করে পাসপোর্ট তৈরি করেছেন। এবং সেটি দিয়ে পাসপোর্ট করে অন্য কোন দেশে অনেকদিন থাকার পর পুনরায় দেশে ফিরত এসে নতুন আরো একটি জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরি করেছেন! এটি এক ধরনের অপরাধ আপনার শুধুমাত্র একটি জন্ম নিবন্ধন থাকবে।

জন্ম নিবন্ধন বাতিল করার নিয়ম
জন্ম নিবন্ধন বাতিল করার নিয়ম

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন ওয়েবসাইটে বর্তমান সময়ে অনেক তথ্য অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন ও সংশোধন করা গেলেও, জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে বাতিল করার নিয়মটি এখনো চালু করেনি https://bdris.gov.bd রেজিস্ট্রার জেনারেল, জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন অধিদপ্তর।

তাহলে আমরা কিভাবে একাধিক জন্ম নিবন্ধন বাতিল করব? এর উত্তর হল আপনাকে ম্যানুয়ালি অর্থাৎ উপস্থিত হয়ে এবং যাবতীয় তথ্য সঙ্গে করে নিয়ে একাধিক জন্ম নিবন্ধন বাতিল করতে হবে। আমাদের দেশে অনেক মানুষ হয়েছে যার দুই থেকে তিনটি জন্ম নিবন্ধন সনদ বর্তমানে সার্ভারে রয়েছে। এটি যদি কোন ভাবে সরকার বুঝতে পারে তাহলে আপনার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে।

আরোও পড়ুন: অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন অনুসন্ধান।

আপনি একটি জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়ে যেকোনো কাজ করতে পারবেন। এবং বৈধভাবে সব কাজ করা গেলেও অবৈধভাবে অনেকেই জন্ম নিবন্ধন তৈরি করে থাকে বিভিন্ন কাজ করার ক্ষেত্রে। জন্ম নিবন্ধন বাতিল সম্পর্কে জেনারেল রেজিস্ট্রেশন জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন অধিদপ্তর হতে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছেন। যেখানে তারা বলেছেন জন্ম নিবন্ধন বাতিল করতে আপনাকে কিছু ডকুমেন্ট সংগ্রহ করে তা ইউনিয়ন পরিষদ বা সিটি কর্পোরেশনে গিয়ে একটি আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে ও অ্যাপ্লিকেশন জমা দিতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন বাতিলের আবেদন।

জন্ম নিবন্ধন বাতিলের আবেদন করার নিয়ম খুবই সহজ। যদি আপনার একাধিক জন্ম নিবন্ধন থাকে তাহলে আপনাকে সেই জন্ম নিবন্ধনের কপি সংগ্রহ করতে হবে। অর্থাৎ আপনার যদি তিনটি জন্ম নিবন্ধন থাকে তাহলে আপনি এখান থেকে শুধুমাত্র একটি জন্ম নিবন্ধন সনদ আপনার জন্য রেখে দিবেন। এবং বাকি দুটি আবেদন করবেন বাতিল করার জন্য।

এক্ষেত্রে আপনাকে লিখিত আবেদন করতে হবে! অনলাইনে আবেদন করার সাধারণ মানুষের কোন সুযোগ নেই। জন্ম নিবন্ধন স্থানীয় সরকার এক বিবৃতি মধ্যে জানিয়েছে যদি আপনার একাধিক জন্ম নিবন্ধন সনদ থাকে তাহলে সেটি দ্রুত সময়ের মধ্যে বাতিল করে নিতে হবে। এবং কোনভাবে এটি অনলাইন সার্ভারের ধরা পড়লে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা বা জরিমানা পর্যন্ত হতে পারে।

জন্ম নিবন্ধন বাতিলের ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই, কারণ দশা উল্লেখ্য করতে হবে কি কারনে আপনি একাধিক জন্ম নিবন্ধন তৈরি করেছিলেন। এবং সেগুলো কি কাজে ব্যবহার করেছিলেন বিশেষ করে সরকারি কোন কাজে ব্যবহার করলে তা উল্লেখ করবেন। এরপর আপনার আবেদনটি জেলা পর্যায়ে এবং এরপরে হেড অফিসে গিয়ে তথ্য যাচাই করে করবে। তারা যদি বুঝতে পারে আসলে আপনি ভুলবশত একাধিক জন্ম নিবন্ধন তৈরি করেছেন তাহলে আপনার বাকি সনদ গুলি সার্ভার থেকে ডিলিট করে দেবে। এবং শুধুমাত্র একটি জন্ম নিবন্ধন সার্ভারে রাখবে।

জন্ম নিবন্ধন বাতিল করবো কোথায়।

অনেকে হয়তো ভাবতেছেন জন্ম নিবন্ধন বাতিল করবো কোথায়? কেননা অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন বাতিল করার কোন পদ্ধতি বা সিস্টেম চালু করা হয়নি। আপনাকে সরাসরি দিয়ে জন্ম নিবন্ধন বাতিলের আবেদন করতে হবে এবং সেটি ধীরে ধীরে অফিশিয়াল পর্যায় গেলে তারা সঠিক ভাবে যাচাই করে আপনার একাধিক জন্ম নিবন্ধন বাতিল করবে।

জন্ম নিবন্ধন বাতিল করার স্থান!

  • ইউনিয়ন পরিষদ।
  • সিটি কর্পোরেশন।
  • পৌরসভা।

আপনি এখানে যেকোনো স্থানের বাসিন্দা হন না কেন! আপনার একাধিক জন্ম নিবন্ধন সনদ থাকলে সেগুলোর কপি সংগ্রহ করবেন। এরপর যে আপনি রাখতে চাচ্ছেন সেটি রেখে বাকিগুলো কি কারনে তৈরি করেছিলেন তা আপনাকে লিখিত মাধ্যমে একটি আবেদনপত্র তৈরি করতে হবে। এবং সেখানে সকল ডকুমেন্টের কপি সংযোজন করে দেবেন।

সেটি আপনি ইউনিয়ন পরিষদ / সিটি কর্পোরেশন বা পৌরসভা অফিস দপ্তরে গিয়ে প্রদান করবেন। তারা সেদিন জেলা পর্যায়ে পাঠাবে। এবং জেলা পর্যায়ে এটি পাঠানো হবে জেনারেল রেজিস্ট্রেশন জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন অধিদপ্তরে। সর্বশেষ তারা যাচাইয়ের মাধ্যমে আপনার সনদ একটি রেখে বাকি সনদ গুলি অনলাইন সার্ভার থেকে জন্ম নিবন্ধনগুলি বাতিল করে দেবে।

জন্ম নিবন্ধন বাতিলের ফি।

জন্ম নিবন্ধন বাতিল করার ফি যদিও প্রজ্ঞাপনে লিখা হয়নি। এক্ষেত্রে আপনি যেখানে আপনার আবেদনটি প্রদান করবেন সেই সেখানে কিছু অর্থ প্রয়োজন হলে আপনাকে দিতে হবে যা সরকারি ভাবে নয়।

জন্ম নিবন্ধন বাতিলের ফি সরকারিভাবে নির্ধারণ করা না হলেও! অনেক ক্ষেত্রে দেখা যাবে অর্থ প্রদান করতে হচ্ছে এক্ষেত্রে সেটি প্রদান করতে হবে। কেননা অল্প কিছু অর্থ প্রদান করার মাধ্যম হলেও, আপনার একাধিক জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন থেকে ডিলিট করুন। এটি রাখা বেআইনি এবং অবৈধ।

আরোও পড়ুন: জন্ম নিবন্ধন ফি কত টাকা
জন্ম নিবন্ধন আবেদনের বর্তমান স্ট্যাটাস।

আশা করি বুঝতে পেরেছেন কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সনদ একাধিক থাকলে বাতিল করার নিয়ম সম্পর্কে। যদি ভবিষ্যতে এটি অনলাইন সিস্টেম করা হয় তাহলে সেই বিষয়ে আপনাদেরকে জানানো হবে। বর্তমান সময় শুধুমাত্র লিখিত মাধ্যম ব্যবহার করে জন্ম নিবন্ধন বাতিলের আবেদন করা যায় স্থানীয় সরকারের মাধ্যমে।

সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং আমাদের ওয়েবসাইটের সঙ্গে থাকবেন ধন্যবাদ সবাইকে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button