Passport

মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করার নিয়ম।

মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে সম্পুর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন। বাংলাদেশ থেকে আপনি মালয়েশিয়া সহ যেকোনো দেশে যাননা কেনো, আপনার অবশ্যই পাসপোর্ট এবং ভিসা বৈধ থাকতে হবে। এছাড়া আপনি কাঙ্খিত দেশে প্রবেশ করতে পারবেন না। এই পোস্ট হতে জানবো মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করার নিয়ম।

প্রবাসে যাওয়ার পূর্বেই, আপনাকে মেডিকেল রিপোর্ট চেক করতে হবে। এছাড়া কোম্পানির পক্ষ হতে প্রতি বছরে প্রবাসীদের মেডিকেল টেস্ট করানো হয় থাকে। আপনি যদি মালয়েশিয়া যেতে চান তাহলে আপনার সমস্ত ডকুমেন্ট সঠিক থাকতে হবে। বিশেষ করে যদি আপনার মেডিকেল রিপোর্ট আনফিট হয়ে থাকে! তাহলে এটি দ্রুত সমাধান করে মেডিকেল রিপোর্ট ফিট হতে হবে। তাহলেই, মালয়েশিয়াতে প্রবেশ করা যাবে।

মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক।

আমরা খুব সহজে মেডিকেল টেস্ট এর কিছুদিন পর, অনলাইনে মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করতে পারব। বর্তমানে পাসপোর্ট দিয়ে মেডিকেল রিপোর্ট চেক করা যায়। এর জন্য আপনার পাসপোর্ট নাম্বারটি জানা থাকতে হবে তাহলে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট হতে চেক করা যাবে মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট।

মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক
মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক

মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করতে কি কি লাগে? আপনি যে পাসপোর্ট এর সাহায্যে মেডিকেল টেস্ট করতেছেন সেই পাসপোর্ট নাম্বার প্রয়োজন হবে। এবং আপনাকে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে, সেখানে সমস্ত তথ্য দিয়ে দেখতে পারবেন আপনার মেডিকেল রিপোর্ট ফিট নাকি আনফিট।

তাহলে চলুন দেখে নেয়া যাক কিভাবে মালয়েশিয়া মেডিকেল চেক করবেন অনলাইনে থেকে। সঠিক ভাবে পোস্ট দেখে তারপর আপনি নিজেই চেষ্টা করতে পারবেন। সম্পুর্ণ বিনামূল্যে অনলাইন দেখা যাবে।

মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করার নিয়ম।

মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করতে, https://eservices.imi.gov.my/myimms/FomemaStatus সাইটে গিয়ে, CARIAN থেকে No Pasport এখানে পাসপোর্ট নাম্বার দিন! এবং, Warganegara থেকে আপনার দেশ বাংলাদেশ নির্বাচন করুন। এরপর, Carian ক্লিক করলে দেখতে পারবেন আপনার মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক ফলাফল চলে এসেছে।

malaysia-medical-report-check
malaysia-medical-report-check

পাসপোর্ট দিয়ে মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করতে, উপরে লিঙ্কে প্রবেশ করে, আমাদের সর্বপ্রথম পেজটি ইংরেজি অনুবাদ করতে হবে। অর্থাৎ, সেখানে English Translation করে নিবেন। এরপর আপনি যে পাসপোর্ট দিয়ে মেডিকেল টেস্ট করেছেন! সেই পাসপোর্ট নম্বরটি এখানে লিখে দিতে হবে।

এবং এখান থেকে আমাদেরকে দেশ নির্বাচন করতে হবে। যদি আপনি বাংলাদেশী হয়ে থাকেন এক্ষেত্রে, মেডিকেল রিপোর্ট চেক বাংলাদেশ নির্বাচন করবেন। এবং ভারতীয় নাগরিক হলে অবশ্যই আপনাকে ইন্ডিয়া নির্বাচন করতে হবে এই অপশন হইতে। এরপর, পাশেই ছোট অক্ষরে (small letter) লিখা রয়েছে, Carian এখানে ক্লিক করে দিলে আপনার পাসপোর্ট এবং মালয়েশিয়া ভিসা এর সকল ফলাফল চলে আসবে।

মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করার পদ্ধতি।

মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করতে নিম্নলিখিত পদ্ধতি অবলম্বন করুন। আশা করি আপনি নিজেই ঘরে বসে, মেডিকেল রিপোর্ট চেক করতে পারবেন।

  • মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করার জন্য, অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://eservices.imi.gov.my/myimms/FomemaStatus ভিজিট করুন।
  • আপনার, No Pasport বক্সে পাসপোর্ট এর নাম্বার লিখুন, প্রথম বক্সে (নিচের ছোট্ট একটি বক্স রয়েছে যেখানে BGD) লিখে দিবেন।
  • এরপর, Warganegara বক্সে বাংলাদেশ নির্বাচন করতে হবে, অবশ্যই নিজের দেশ নির্বাচন করবেন। এরপর, Carian ক্লিক করার কয়েক সেকেন্ড পর দেখতে পারবেন মেডিকেল রিপোর্ট এর ফলাফল।

মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট কত দিন লাগে।

আপনি প্রথমবার বাংলাদেশের যখন মেডিকেল টেস্টের জন্য আবেদন এবং টেস্ট করবেন! সঙ্গে সঙ্গে আপনার রিপোর্ট কিন্তু অনলাইনে পাওয়া যাবে না। এর জন্য আপনাকে বেশ কিছুদিন সময় অপেক্ষা করতে হবে এবং পরবর্তী এই নিয়ম অবলম্বন করে অনলাইনে আপনাকে মালয়েশিয়া মেডিকেল রিপোর্ট চেক করার জন্য অনুসন্ধান করতে হবে ওয়েবসাইট থেকে।

এছাড়াও আপনি যে মেডিকেল হতে, আপনার টেস্ট গুলি করাবেন সেখান থেকেও একটি সার্টিফিকেট উত্তোলন করতে পারবেন যেখানে দেখতে পারবেন আপনার মেডিকেল রিপোর্টে ফিট নাকি আনফিট। শুধুমাত্র Malaysia medical report fit থাকলে আপনি সেই দেশে ভ্রমণ করতে পারবেন। যদি medical report unfit থাকে তাহলে আপনাকে আরও অপেক্ষা করতে হবে এবং তার শারীরিক যে সমস্যা গুলি রয়েছে তা সমাধান করতে হবে।

মেডিকেল রিপোর্ট আনফিট থাকা অবস্থায় আপনি কোনভাবেই মালোশিয়া বা অন্য কোন দেশের প্রবেশ করতে পারবেন না এটি সকল দেশের একটি নিয়ম।

আশা করি বুঝতে পেরেছেন, আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়মিত মেডিকেল টেস্ট সম্পর্কে সকল দেশের অফিসের ওয়েবসাইট ও টেস্ট করার নিয়ম নিয়ে আর্টিকেল প্রকাশ করা হবে। সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন এবং আমাদের সঙ্গে থাকুন ধন্যবাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button